দুমকিতে ১৫ দিন অবস্থানের পর স্ত্রী’র মর্যাদা পেল সেই কলেজ ছাত্রী! 

মোঃ মিজানুর রহমান পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ 
বিয়ের দাবিতে পটুয়াখালীর দুমকিতে প্রেমিকের বাড়িতে ১৫দিন ধরে অবস্থান করেন কলেজ ছাত্রী মনি আক্তার(১৯)। অবশেষে তার সঙ্গে প্রেমিক রিয়াজুল ইসলাম রাব্বি’র(২৬) বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।
শনিবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে উপজেলার আঙ্গারিয়া ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যানের বাড়িতে বিয়ে হয় পুর্ব জলিশা গ্রামের মৃত.ইউনুস হাওলাদারের ছেলে মোঃ রিয়াজুল ইসলাম রাব্বি’র সঙ্গে বিয়ে সম্পন্ন হয়।
মনি আক্তারের দীর্ঘ ১৫ দিনের এমন অবস্থানের ঘটনায় এলাকায় ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হলে শনিবার (২২ জানুয়ারি) রাতে গ্রাম প্রধানসহ জনপ্রতিনিধিদের নেতৃত্বে দুই পরিবারের সদস্যদের নিয়ে আলাপ-আলোচনা করা হয়। শেষে রাব্বি ও তার পরিবারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এলাকাবাসীর উপস্থিতিতে এক লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করে মনি’র সঙ্গে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হয়। পরের দিন সকালে ওই দম্পতি বাস যোগে ঢাকায় গেছেন।
সকলের কাছে দু’আ চেয়ে রিয়াজুল ইসলাম রাব্বি বলেন, চেয়ারম্যান বাড়িতে বসে সকলের উপস্থিততেই বিয়ে হয়েছে। আমরা আজ ঢাকায় যাচ্ছি। নাউ শি ইজ মাই ওয়াইফ, ওয়েল ডান।
আঙ্গারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ গোলাম মর্তুজা জানান,বিষয়টি জানার পর দুই পরিবার নিয়ে স্থানীয়ভাবে সমাধানের পর বিয়ে দেওয়া হয়েছে।
দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুস সালাম বলেন, বিষয়টি শুনেছি। জনপ্রতিনিধি ও দুই পরিবারের উপস্থিতিতে ওই তরুণীর সঙ্গে ছেলে রাব্বি’র বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।
উল্লেখ্য, ফেসবুক মেসেন্জারে পৌনে চার বছর আগে এক বন্ধুর মাধ্যমে মনি ও রাব্বি’র পরিচয় থেকে প্রেম হয়। গত দু’মাস পূর্বে দুই পরিবারের পক্ষ থেকে বিয়ের কথাবার্তা ও বাড়িঘর দেখাদেখি হয়। এরপর থেকে মনি প্রেমিক রাব্বিকে বিয়ের চাপ দিয়ে আসছিল। কিন্তু রাব্বি তার পরিবারকে ম্যানেজ না করতে পারায় মনিকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায় এবং সম্প্রতি মনি’র সাথে রাব্বি সকল প্রকারের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিলে কোন উপায় না পেয়ে বিয়ের দাবিতে ৭ জানুয়ারি দুপুর থেকে প্রেমিক রাব্বি’র বাড়িতে যুবতী মনি আক্তার অবস্থান নেন।
এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -