প্রতি বছর অসংখ্য মানুষ স্ট্রোকে আক্রান্ত হন

স্বাধীন নিউজ ডেস্ক! 

প্রতি বছর অসংখ্য মানুষ স্ট্রোকে আক্রান্ত হন। কেউ বেঁচে ফেরেন না, কেউ কেউ আবার মৃত্যুকে জয় করে ফিরে আসেন।

তবে বেঁচে ফেরাদের দুই-তৃতীয়াংশ প্রথমবার স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার ১০ বছরের মধ্যে মারা যান। অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি সমীক্ষায় তা বলা হয়েছে। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

সম্প্রতি করা বিশ্ববিদ্যালয়টির সমীক্ষায় অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের প্রায় ৩ লক্ষ ১৩ হাজার রোগীর চিকিত্‍সার ইতিহাস খতিয়ে দেখেছেন গবেষকরা।

সমীক্ষার তথ্য বলছে, প্রতি পাঁচ জন রোগীর মধ্যে এক জন পাঁচ বছরের মধ্যেই দ্বিতীয়বার স্ট্রোকে আক্রান্ত হন। আর ১০ বছরের মধ্যে দ্বিতীয়বার স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার রোগীর সংখ্যা শতকরা ২৭ ভাগ।

স্ট্রোকে আক্রান্ত রোগীদের অর্ধেকেরও বেশি আক্রান্ত হয়েছেন ইসকেমিক স্ট্রোকে। মস্তিষ্কে রক্ত সরবরাহকারী ধমনীতে রক্ত চলাচলের প্রতিবন্ধকতা তৈরি হলে এই ধরনের স্ট্রোকের ঝুঁকি বেড়ে যায় বলে মত দিয়েছেন গবেষকরা। সমীক্ষায় আরও বলা হয়েছে, প্রথম দশ বছরের মধ্যে স্ট্রোকে আক্রান্ত নারীদের মৃত্যুহার পুরুষদের তুলনায় বেশি।

গবেষকদের দাবি, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই চিকিত্‍সার অভাবে এমনটা ঘটছে। থ্রম্বোলাইসিস ও এন্ডোভ্যাস্কুলার চিকিত্‍সা পদ্ধতির মাধ্যমে অনেকটাই কমানো যায় এই ঝুঁকি।

কিন্তু সমীক্ষার তথ্য বলছে, মাত্র ১০ শতাংশ রোগী থ্রম্বোলাইসিসের চিকিত্‍সা নিয়েছেন। গবেষকদের আরও দাবি, প্রথমবার স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার পর নিয়মিত চিকিত্‍সকদের তত্ত্বাবধানে থাকা অত্যন্ত জরুরি।

কিন্তু ৩৭ শতাংশ রোগী সময় মতো গিয়েছেন চিকিত্‍সকের কাছে। পাশাপাশি গবেষকরা জানিয়েছেন, একবার স্ট্রোকে আক্রান্ত হলে জীবনচর্চা ও খাদ্যাভ্যাসে বহু ধরনের বদল আনার প্রয়োজন হয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই রোগীরা তা করেন না।

এই ওয়েবসাইটের সকল লেখার দায়ভার লেখকের নিজের, স্বাধীন নিউজ কতৃপক্ষ প্রকাশিত লেখার দায়ভার বহন করে না।
এই বিভাগের আরও খবর
- Advertisment -

সর্বাধিক পঠিত

- Advertisment -